অচিন্ত্য মাজী

খেয়ালী

 

মৃত্যুর মতো সেই শালপ্রাংশু আবির্ভাব

জীবনকে ঘিরে ধরেছে প্রসন্ন শ্যাম রোমাঞ্চে

ধুকপুক প্রাণ মিলে গেল গলে গেল আঁধারে অঙ্গারে

অপরূপ সবুজ মেখে কোমল ছন্দে স্থির সমস্ত চঞ্চলতা

সঞ্চিত আলোতে ফোটে ধিকিধিকি আগুনের কোঁড়

আদিম চক্রে পাক খাওয়া উলঙ্গ কালো ফণা

তার অনির্বান উন্মুক্ত দৃষ্টির কাছে আহত পরাভূত

ঝনঝন করে ভাঙছে মেদবহুল শীতল সৃজন

ধুলো উড়ছে চারদিকে, আদি অকৃত্তিম প্রাণবন্ত

ধুলো গুমোট কেটে গেছে দিগন্ত জুড়ে খেয়ালী কালোর প্লাবন

মেঘভাঙা বৃষ্টি নেমে ধুয়ে দেবে ভস্মাধার

 

কী এক সুদূর সং যোগে চৈতন্য নত হয়ে আসে।