বর্ণালী ঘোষ

ন্যুব্জে ওরা ভারে

 

কত পাথর বইছে ওরা

তলিয়ে গেলেও  ফেলছে না …

লাল নীল বেশ চকচকে রঙ

নিলাম তার একটা

 

ভেসে থাকা কঠিন হল

দম বন্ধ লাগে …

দিলাম ফেলে …

জেগে উঠি

মাথা ডোবার আগে …

দেখেছিলাম রাঘব বোয়াল

কাঁচ জলটার পিঠে …

চুনোপুটি আমার মতো

খাচ্ছে চেটেপুটে …

কেউকেটাটাও আছে এখন

তোষকদলে মিশে

আগামী জল ভরবে  ওরই বিষে …

গায়ের আঁশ বারোমাস গজালে আবার খায়

অনেক ব্যথা সয়েও ওরা শিলা ঠিক আগলায়

কি বর পাবে অর্থ না যশ

সবটা ওরাই জানে

আমি শুধু জেনেছিলাম

খোলা নিঃশ্বাস

বেঁচে থাকার মানে …