শরণ্যা

কবিতা

 

নাগকেশর থেকে অনেক দূরে,

যেখানে একলা শুয়ে থাকা যায়

সেখানে, সবাই বুঝি বেঁচে আছে শালিখ হতে চেয়ে,

যেখানে, তেকোনা ডানায় সবটুকু উল্টে দেয়

যতোটুকু ধানের, যতোটুকু রূপকথার;

 

এখনও নাগরের ওষ্ঠে বুঝি এলিয়ে দেয়

জাম কষটানো ঠোঁট?

এখনও  সন্ধেযাপন করে ভেজা চুলে,

মুড়ি বাতাসার উঠোনে?

 

নাগকেশর থেকে জায়গাটা অনেক দূরে,

এখন, সন্ধে হলে প্রেমিকার অসাড় আঙুল জুড়ে ছড়িয়ে পড়ে  শীতঘুম।

এখানে, সবাই বুঝি বেঁচে আছে বৃষ্টি হতে চেয়ে,

 

কতটুকু মাটির, কতটুকু রূপকথার?