বন্যা লোহার

ধ্যান 

 

 

যা কিছু ভারি

সমস্ত নীচে থিতিয়ে যাবার পর

উপরের স্বচ্ছ জলে নিজের মুখ দেখব ,

এই লোভ সামলাতে পারছি না বলেই

মনের ভেতরে নিঃশব্দ বসে আছি ।

এখন কস্তুরীগন্ধি মায়ামৃগ হেঁটে গেলেও ,

আমি মুখ তুলে তাকাব না ।

 

নিশ্ছিদ্র শূন্যের

সেখানে সশব্দ বিচরণ ।

সব আলো, কালো হয়ে এলে

বরণ করে নেব তাঁকে ।

 

যেহেতু ,

শূন্যই প্রকৃত পূর্ণ ।