শংকর চক্রবর্তী

গার্হস্থ্যের রাক্ষস-জীবন

 

নতুন দিনের একা রাক্ষস ঘরের মধ্যে ঢুকে বসে থাকে বিছানায়

সে ছিল তোমার প্রাণ—বকুল গাছের নীচে বসে-থাকা অঢেল দুষ্টুমি

রাক্ষস-জন্মের আগে কত ভুলভ্রান্তি নিয়ে হাস্যরস ছিল

ওগো চিরকালীনতা তোমাকে তো মানিয়েছে ঢের—

কিছুটা বিপুল কাঠ জ্বালিয়ে সংসার-ঘর সাজানোর আগে

ধীরে ধীরে গোপনীয় সুখ মাথা তুলেছিল হঠাৎ তখনই

কত ফস্টিনস্টি ছিল কত কিছু চিরকুটে লিখে-রাখা ছিল

এসবই মেলার থেকে কিনে এনে জমিয়েছো মুখোসের মতো

এসবই আদিগন্তের খেলাধুলো ভয়েরও ছিল না

এমন মসৃণ রাস্তা দেখেও কীভাবে তুমি অল্প পুষে-রাখা দুঃখ নিয়ে

এবাড়ি ওবাড়ি ঘুরে সুখের বিছানায় বসলে !

 

ওগো রাক্ষসের ডিম লাফিয়ে বিছানা থেকে খাটের তলায় লুকিয়ো না

যত্রতত্র মেলামেশা হোক কোনও ফুলের বাগানে।