জগন্নাথদেব মন্ডল

প্রেম

 

বিকেলবেলার ঝরনা, তুমি বাড়ির ছাতে দাঁড়িয়ে আছো।

ফর্সাকপাল জ্বরের ঘোরে জ্বলছে।

 

বারান্দায় বেলিফুলের ঝোপ,শাড়ি মেলা।

বিকেলের আজান শেষ হল।

 

কেন আসে তোমার কাছে নতুন যুবক?

মম কেঁচোত্বক যেন সমুদ্রনুনে পুড়ে যায়!

 

ওদের তুমি বারণ করো,

না হলে গাছ চালানো বিদ্যে শিখব।

অই শালোর দলকে বানিয়ে দেব খামারবাড়ির সোনারমহিষ।

 

প্রেমিকের এই রাগ দেখে রোগাকবি অবাক হয়ে যাচ্ছে!

আর দ্যাখো, ওগো ঝরনা আমার,মাঝরাতে

কেঁদে কেঁদে শুদ্ধ বেড়ালছানা হয়ে যাচ্ছি !

এখন আমায় কোলে নাও!