মৌমিতা বাছাড়

অজানা শব্দেরা কিছু

 

এ বিরাট পৃথিবীর বিভীষিকাময় রূপ

নিরন্তর লুফে নেয়  চোখের কর্ণিয়া  !

 

দেখি , নিস্তব্ধ আকাশ।

শত শত নক্ষত্রের চকমকি ঠোকানো আলো

চুপিসারে ঝলসে দেয় অক্ষর না-জানা

কোনো এক শান্ত মুখ

 

ক্রমশ নিস্তেজ হই ।

অবশ শরীর সেঁচে বের হয়ে আসে নোনা জল—

ঠিক দুঃস্বপ্নের মতো

দীর্ঘশ্বাস গাঢ় হলে

কেলাসিত শব্দগুচ্ছ নীরবে জারিত হয়  |

আর তারপর ,

তারপর

সেই অজানা মুখের অজানা স্পর্শে

যুগল পঙক্তি জুড়ে সেজে ওঠে কল্পকথা

কিংবা অজস্র কবিতা বিশাল ভাবনার মাঝে

সাঁতরে পার হয়ে যায়।