সন্দীপন দাস

মায়াজোছনা

তোমার শরীরে আলোর পাখি

এ পথজুড়ে ছড়ানো-ছিটানো কত আগুন, কত নিঃসঙ্গতা

বন্ধুদের ভুলে যাওয়া অন্ধকার…

তোমার শরীর থেকে আলো এসে ঠিকরে পড়ে পথে

মুহুর্তেই ঐশ্বরিক হয়ে ওঠে পথের নাম…

আমার আর ফেরা হয় না

ফেরা হয় না তোমার পৃথিবীতে

যেখানে মুখ লুকিয়ে কেঁদেই চলেছে কোনও স্বপ্নের উদ্বৃত্ত,

তৃতীয় বিশ্ব কিংবা বেবাক সন্ধে…

আমি মুখ থুবড়ে পড়ি

তারপর তোমার হেরে যাওয়া পৃথিবীর কথা ভাবতে ভাবতে

ঘুমিয়ে পড়ি মনকেমনের রাতে

মাঝরাতে হঠাৎই ঘুম ভেঙে দেখি এ পথজুড়ে ছড়ানো-ছিটানো

কত আগুন, কত বিজয় অভিলাষী ছোট বড় ছায়া,

আবছা আলোর গন্ধ…

আমি আবারও মুখ থুবড়ে পড়ি

কোনও আলোকশিল্পীর কর্ণিয়া জুড়ে…

কোনও আদিবাসী রমণীর অন্ধকার জুড়ে…

কোনও ভুলে যাওয়া কবির কবিতা জুড়ে…

আমার আর রাষ্ট্র হয়ে ওঠা হয় না…

আলো অভিলাষী বিজয়গাঁথা হয়ে ওঠা হয় না…

তোমার শরীর জুড়ে আজ শুধুই আলোর পাখি…