চন্দ্রাণী গোস্বামী

আলিঙ্গন

দামাল তিস্তাকে দেখে ভীষণ লোভ হত। কোনোদিন ছিপছিপে 

সুবর্ণরেখাই হয়ে উঠতে পারিনি। তাই আলিঙ্গনের প্রশ্নও ওঠেনি

তিস্তার সাথে। ভালোবাসার কথাও বলা হয়ে ওঠেনি। আজকাল

অনন্ত বিকেলগুলোয় একা বসে ভাবি, একদিন নিশ্চয়ই যাব

তিস্তার কাছে। তার বুকের ছোট ছোট বাঁকগুলোতে পান্না নীল হয়ে

ভেসে থাকব। যদি তিস্তা জানতে চায়, ‘ও মেয়ে তুমি কে গা?’,

বলব—আমাকে আলিঙ্গন বললে আলিঙ্গন… শরীর ভাবলে শরীর…

নারী হলে নারী আর ভালবাসা ভাবলে আমি অকাতর ভালবাসা…

গায়ে নীল সুতোর অসামান্য বালুচরী নকশা, মরে পড়ে

থাকবে এক সাপ সবুজ জ্যোৎস্নারাতে তিস্তায়!