শাশ্বতী দাশগুপ্ত

আমার হারানো বাড়ি

শরীরে আমার মধ‍্যদুপুরের ঘ্রাণ লেগে আছে,

হাত রাখছি আমার গাঁয়ের প্রতিটি দরজায়,

খুঁজে চলছি আমার হারিয়ে যাওয়া বাড়ি।

কৃষ্ণবর্ণ মেঘ আর তীব্র বিদ‍্যুৎরেখায়

আধো আলোছায়া মাখা বাড়িটি  জেগে উঠছে,

জমে উঠছে যাপনচিত্র।

কিন্তু খোঁজাই সার,

ভাঙা দুয়ার, উঠোন, কুয়োতলা, মায়ের আঙুলে সলতেভরা

লাজুক আগুন, অফুরন্ত চোখের জল, কার্ণিসে চোঁয়ানো বৃষ্টি

সব আবার হারিয়ে যাচ্ছে, খুঁজতে খুঁজতে ছুঁয়ে ফেলছি স্তব্ধতা।

দুপুর গড়িয়ে গড়িয়ে সন্ধে নামছে।

ভাঙা স্মৃতিগুলো জোড়া দিতে দিতে আমার

নিবিড় ভালবাসার শিকড়ে পা জড়িয়ে যাচ্ছে।

খুঁজে দেখছি পরম আশ্বাসে ভরা সূর্যাস্তের মেঠো চেনা পথ।

গাঢ় মমতায় জেগে থাকা রাত আমায় শুশ্রূষার আশ্বাস দেয়।

রুগ্ন দুহাতে খুঁজে চলি আমার হারানো বাড়ি, যেখানে আমার

জন‍্য অপেক্ষায় আছে মুঠোভরা আলো,

নরম উঠোন আর আশ্চর্য সুখের হাতছানি।